রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন

সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন উখিয়ার শাহ আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক ::

সিএনজিতে কুড়িয়ে পাওয়া দামি স্মার্টফোন (স্যামসাং) ফেরত দিয়ে সততার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন উখিয়ার তরুণ শাহ আলম। শাহ আলম রাজাপালংয়ের ফরিদুল আলমের ছেলে। আগে উখিয়ার একটি দোকানে কাজ করতেন এখন পড়ালেখার পাশাপাশি একটি এনজিওতে কাজ করেন।

তরুণ শাহ আলম চাকরি থেকে ফেরার পথে মঙ্গলবার থাইংখালীতে সিএনজির মধ্যে মোবাইলটি পড়ে থাকতে দেখে মোবাইলের মালিক খু্ঁজলে কাউকে না পেয়ে মোবাইলটি নিজ হাতে রেখে মালিক খুঁজতে থাকেন। একটি নাম্বার থেকে কল দিয়ে বলেন আমি সাখাওয়াত ফোনটি আমার তখন তাকে উখিয়া এসে মোবাইল নিয়ে যেতে বলেন শাহ আলম।

আজ বুধবার রাত ৮টায় শাহ আলমের সাথে যোগাযোগ করে সাখাওয়াত উখিয়ার বন্ধন ইলেকট্রনিক্সে এসে নিজের পরিচয় দিয়ে বলেন আমি চন্দনাইশের মাহমুদুল হকের পুত্র মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন। মোবাইলটি আমার। যাচাই-বাচাই করে নিশ্চিত হওয়া গেল মোবাইলটি সাখাওয়াতের।

সাখাওয়াত জানান, উখিয়ায় এক আত্নীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসে মোবাইলটি হারিয়ে ফেলেন। সেই মোবাইলে থাকা নাম্বারে কল দিলে কেউ ফোন রিসিভ না করায় হতাশ হয়ে চন্দনাইশ চলে যান তিনি।

উখিয়ার বন্ধন ইলেকট্রনিক্সে উখিয়া প্রেসক্লাব সভাপতি সরওয়ার আলম শাহীনের উপস্থিতে শাহ আলম মোবাইলটি সাখাওয়াতের হাতে হস্তান্তর করেন।

মোবাইল পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে সাখাওয়াত বলেন, মারপ্যাচের এই সময়ে এমন সৎ মানুষ খুঁজে পাওয়া যায় না। শাহ আলম ভাইয়ের সততায় আমি মুগ্ধ। তার জন্য মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে অনেক অনেক দোয়া করি।

শাহ আলম বলেন, মোবাইলটি প্রকৃত মালিকের কাছে ফেরত দিতে পেরে ভাল লাগছে, দায়মুক্ত হতে পারলাম। সৎভাবে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সকলের নিকট দোয়া চাই।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 CoxBDNews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: কপি করা চলবে না