শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন

কেড়ে নেওয়া হচ্ছে শামীমার ব্রিটিশ নাগরিকত্ব

সিএন ডেস্ক।।

জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেওয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শামীমা বেগমের ব্রিটিশ নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। চার বছর আগে সিরিয়ায় পাড়ি জমানো এই নারী সম্প্রতি এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। আর সন্তানের জন্য তাকে দেশে আশ্রয় দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন তিনি।

মঙ্গলবার শামীমার মায়ের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভেদ।

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে সিরিয়ার উদ্দেশে যুক্তরাজ্য ছাড়েন শামীমা। তখন তিনি ১৫ বছর বয়সী ছিলেন। বর্তমানে তিনি শরণার্থী শিবিরে অবস্থান করছেন।

শিবিরে সন্তান জন্ম দেওয়া শামীমা সম্প্রতি দৈনিক টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সন্তানের জন্য লন্ডনে পরিবারের কাছে ফেরার আগ্রহের কথা জানান। তবে যুক্তরাজ্য সরকার জানিয়েছে, যারা জঙ্গিদের পক্ষে দেশ ছেড়েছে, তাদের ফেরাবে না তারা।

ব্রিটিশ সরকার মনে করছে, শামীমার বাবা-মা যেহেতু বাংলাদেশি, তাই যুক্তরাজ্য ছাড়াও অন্য দেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার সুযোগ আছে তার।

তবে বিবিসিকে শামীমা বলেছেন, তিনি কখনও বাংলাদেশে আসেননি িএবং তার বাংলাদেশি পাসপোর্টও নেই।
অবশ্য শামীমার আইনজীবী তাসনিম আখুনজি জানিয়েছেন, তারা এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করবেন। তিনি বলছেন, ‘নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হলে সে রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়বে। আর সেটা হবে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভেদ পার্লামেন্টকে বলেছেন, এ পর্যন্ত নয়শর বেশি ব্রিটিশ নাগরিক যুক্তরাজ্য ছেড়ে আইএসে যোগ দিতে সিরিয়া ও ইরাকে গেছে। তাদের ব্রিটেনে ফেরা ঠেকাতে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে তিনি দ্বিধা করবেন না।

আইন অনুযায়ী, কেবল ব্রিটিশ নাগরিকদের নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়ার সুযোগ নেই। তবে দ্বৈত নাগরিক হলে সেটা সম্ভব।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 CoxBDNews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com